‘গাদ্দারি’ করে বিতর্কে রাণু মণ্ডল সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড়!

ভারতের রানাঘাটের রেল স্টেশনের সেই ভিখারিনী রাণু মন্ডল এখন পরিচিত মুখ। ইতোমধ্যে সেলিব্রেটি বনে গেছেন। এখন তার সঙ্গে সেলফি তোলার জন্য ভিড় করে শত-শত মানুষ।প্যার কা নাগমা হ্যায়’ গেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হন রানু মণ্ডল। সেই যে শুরু, আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি রানুকে। হিমেশ রেশমিয়ার হাত ধরে সরাসরি চলে যান বলিউডে। ‘তেরি মেরি’ গান গেয়ে আপাতত ক্যামেরার ফ্ল্যাশে

রানু।এরপর রানু মন্ডলকে সালমান খানের ‘বিগ বস’-এর ১৩তম সিজনে দেখা যাবে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর শুরু হবে ‘বিগ বস’ এর এবারের সিজন।তার প্রথম গান, অর্থাৎ তিনি যে গান গেয়ে বলিউডে পা দিয়েছেন, তা তো সবাই শুনেছেন। কিন্তু যিনি ওই গানটাকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল করেছিলেন, তাকে কি কোনো দিন কেউ দেখেছেন?তার নাম অতীন্দ্র চক্রবর্তী। পেশায়

তিনি ইলেকট্রিক্স টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ার। রানাঘাট স্টেশন দিয়ে তার নিত্য যাতায়াত। স্টেশন চত্বরে রাণুর গান শুনে তিনি মুগ্ধ হয়েছিলেন। তার গান রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার দায়িত্ব সামলেছিলেন তিনিই। এবার যখন রানু সমস্যায় পড়লেন, আবারও অতীন্দ্রই এগিয়ে এলেন। সর্বত্র নিজের মোবাইল ফোনের নম্বরটাই দিয়ে দিলেন। রাণুর সকল দরকারি ফোন এখন তার কাছেই আসে। এমনকি

মুম্বাই যাওয়ার সময়ও তিনি রাণু মণ্ডলকে আগলে নিয়ে গিয়েছিলেন।তবে সম্প্রতি রাণু মণ্ডলকে প্রশ্ন প্রশ্ন করা হয়, এই যে অতীন্দ্রের মতো মানুষের দৌলতে তিনি এত জায়গায় যাচ্ছেন, তাকে নিয়ে তিনি কী বলবেন? সচরাচর এর উত্তরে লোকে বলে, ‘ভাল’। কিন্তু রানু তা বলেননি। উল্টে তিনি যা বলেছেন, তাতে বেশ চটেছেন নেটিজেনরা। রাণু বলেছেন, ভগবানের দৌলতে যাচ্ছি। ওরা ভগবানের চাকর। আমি ওদের

সাহায্যে যাচ্ছি না। ভগবানের সাহায্যে যাচ্ছি। ওরা ভগবানের চাকর হয়ে যাচ্ছে।তার ওই উত্তরের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সমালোচকরা বলছেন, যে মানুষটা তাকে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে দিয়েছে তাকেই কিনা রাণু চাকর বলে সম্বোধন করলেন। এটা তার কাছ থেকে আশা করিনি। এ ঘটনার পর কেউ কেউ তাকে ‘গাদ্দার’ বলেও সম্বোধন করেছেন।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *